Wednesday , 28 October 2020
আপডেট
Home » অন্যান্য » সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব না দিয়ে কৌশলে এড়িয়ে গেলো উবার
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব না দিয়ে কৌশলে এড়িয়ে গেলো উবার

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব না দিয়ে কৌশলে এড়িয়ে গেলো উবার

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : বাংলাদেশসহ অন্যন্য দেশে খুব জনপ্রিয় যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপভিত্তিক অন ডিমান্ড রাইড শেয়ারিং অ্যাপ উবার-ঢাকায় সাংবাদিক সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব না দিয়ে কৌশলে এড়িয়ে গেলেন। ঢাকায় তাদের এক বছর পার করেছে এই উপলক্ষে তাদের কার্যক্রম জানাতে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সেখানেই ঘটে এই ঘটনা।
রবিবার উবারের গত এক বছরের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করার জন্যই সাংবাদিকদের সামনে হাজির হন। সংবাদ সম্মেলনের এক পর্যায়ের উবার সম্পর্কে সাংবাদিকরা বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করলে তারা তা এড়িয়ে যান। সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে উবার ঢাকার জনসংযোগ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলে। এ নিয়ে সাংবাদিকরা কিছুটা হতাশা প্রকাশ করেন। তথ্যপ্রযুক্তি সাংবাদিক আসাদুজ্জামান লিমন বলেন, উবার এই প্রথম বারের মত ঢাকায় সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করলো। আমরা সবাই খুব আগ্রহ নিয়েই তাদের এই প্রেস কনফারেন্সে আসছি। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম তারা যা বলেছে তাই শুধু জেনেছি। আমর উবার সম্পর্কে অনেক কিছু জানার ছিল কিন্তু উবার এসব প্রশ্নের উত্তর দিতে অপারগতা প্রকাশ করে এড়িয়ে গেলো।
সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই বক্তব্য রাখেন ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া বিভাগের প্রেসিডেন্ট অমিত জৈন, ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার সেন্ট্রাল অপারেশনের হেড প্রদীপ পরমেশ্বর, উবারের ঢাকা ও কলকাতার জেনারেল ম্যানেজার অর্পিত মুন্ডা। অমিত জৈন বলেন, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা উবারের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ মার্কেট। কেননা, এই শহরে জনসংখ্যার আধিক্যের ফলে পাবলিক ট্রান্সপোর্টের ঘাটতি আছে। ঢাকায় ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যাই বেশি। এই বিপুল সংখ্যক ব্যক্তিগত গাড়িগুলোকে রাইড শেয়ারিংয়ের আওতায় এনে পরিবহন সংকট অনেকটাই কমিয়েছে উবার।
অপারেশনের হেড প্রদীপ পরমেশ্বর তার বক্তব্যে বলেন, ঢাকায় প্রতিনিয়ত গাড়ির সংখ্যা বেড়ে চলছে। শহরের যাতায়াত ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে গিয়ে আমরা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখী হয়েছি। তারপরও আমরা সফলতার সঙ্গে ঢাকায় এক বছর পার করেছি। আমরা আশা করছি অ্যাপ ভিত্তিক পরিবর্তন ব্যবস্থায় যথাযথ নীতিমালা তৈরি হলে এই শহরের পরিবহন সংকট অনেকটাই কমবে।
উবারের ঢাকা ও কলকাতার জেনারেল ম্যানেজার অর্পিত মুন্ডা তার পেজেন্টেশনে উবারের কার্যক্রম তুলে ধরেন। এসময় তিনি বলেন, উবারের যাত্রীদের সুরক্ষা দিতে বাংলাদেশের ন্যাশনাল হেল্প লাইন নম্বর ৯৯৯ যোগ করা হয়েছে। ফলে যাত্রীরা আরও সুরক্ষিত থাকছেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতে জানানো হয়েছিল সংবাদ সম্মেলনের শেষ পর্যায়ের সাংবাদিকদের জন্য প্রশ্ন উত্তর পর্ব থাকছে। এই পর্বে সাংবাদিকরা উবারের সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করার সুযোগ পাবেন। কিন্তু অজানা কারণে উবার সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্ন করার সুযোগ দেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*