Sunday , 17 January 2021
আপডেট
Home » রাজনীতি » খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ১৯ ডিসেম্বর
খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ১৯ ডিসেম্বর

খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ১৯ ডিসেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দুর্নীতি দুই মামলার পরবর্তী শুনানি তারিখ ১৯, ২০ ও ২১ ডিসেম্বর ধার্য করেছেন আদালত। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) পুরান ঢাকার বকশি বাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আখতারুজ্জামান এ দিন ধার্য করেন।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। পরবর্তী যুক্তিতর্কের জন্য এই দিন ধার্য করেছেন আদালত। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন একই দিনে ধার্য আছে।
এর আগে মঙ্গলবার সকালে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলায় জামিন পান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। পুরান ঢাকার বকশি বাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে পৌঁছানোর পর তার আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। পরে ১১টা ৪০ মিনিটে বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আখতারুজ্জামান তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। একইসঙ্গে খালেদা জিয়াকে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য আদেশ দেন।
আদালত বসার পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া চারটি আবেদনপত্র জমা দেন আদালতে। যার মধ্যে দুটি জামিন ও দুটি যুক্তিতর্ক উত্তোলনপূর্বক আত্মপক্ষ সমর্থনের আবেদন।
শুনানিতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল জামিন আবেদনের বিরোধিতা করে বলেন, ‘বিবাদী পরপর কয়েকবার জামিনের অপব্যবহার করেছেন। তাই তাকে আর জামিন না দেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।’
প্রসঙ্গত, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট- দুদকের করা এই দুই মামলায় গত ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়ার জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। প্রায় তিন মাস লন্ডনে অবস্থানের পর দেশে ফিরে ১৯ অক্টোবর আদালতে আত্মসমর্পণ করে দুই মামলায় জামিন পান তিনি। তবে গত ৩০ নভেম্বর শুনানির নির্ধারিত দিনে তিনি আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে ফের গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিন চান তিনি।
দুই মামলার অভিযোগপত্রে খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমান, কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে আসামি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*