Wednesday , 21 October 2020
আপডেট
Home » জাতীয় » বেগম জিয়া অনেক বেশি সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন: ডা. জাফরুল্লাহ
বেগম জিয়া অনেক বেশি সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন: ডা. জাফরুল্লাহ

বেগম জিয়া অনেক বেশি সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন: ডা. জাফরুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক: গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, খালেদা জিয়ার চিন্তা-চেতনার অনেক বেশি উন্মেষ হয়েছে। তিনি যে বলেছেন, আইনের প্রতি শ্রাদ্ধাশীল থাকতে, শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ থাকতে, কারো কাছে মাথা নত করবো না এর দ্বারা তিনি অনেক বেশি সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। সাহসীচেতা লোকজন তাকে একজন সাহসী মহিলা হিসাবেই চিনেন। আর বক্তব্যে তার নেতা-কর্মীদের উজ্জেবিত করেছে, দল উজ্জেবিত হয়েছে। এতে কোনো সন্দেহ নেই। একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।
ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, খেলার মাঠে থাকলে আমরা সবাই সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করি। ঠিক তেমনিই আওয়ামী লীগও একটা রাজনৈতিক সুবিধা নেওয়ার জন্য বিচারটা এই বছর শেষ করলো। এর জন্য তাদের দোষ দেওয়া যাবে না, কেন তারা এবছর রায়টা শেষ করলো। তবে আমার মনে হয় না, এই বিচার দ্বারা বিএনপির কোনো ক্ষতি হয়েছে বরং লাভ-ই হয়েছে। তার জেল হয়েছে, কিছুদিন পর হয়তো তিনি জামিন নিয়ে বের হয়ে আসবেন।
তিনি বলেন, এমনটা চিন্তা করলে হবে না যে, নির্বাচন একদলীয় হবে খালেদা জিয়াকে জেলে নেওয়ার মাধ্যমে। বিএনপি নিশ্চয়ই নির্বাচনে যাবে এবং নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হবে। সব মিলিয়ে একটা ভাল খেলা হবে। রায়ের কারণে বিএনপির কোনো অসুবিধা হয়নি। এতে জনগণের তাদের প্রতি সহানুভুতি বাড়ছে। কারণ রায় যে হয়েছে, এটা একটা প্রশ্নবিদ্ধ রায়। যার জন্য বেগম জিয়ার মামলাটা হয়েছে, সেই টাকাতো আর আত্মসাত হয়নি, তা ব্যাংকেই রয়ে গেছে। ব্যাংকে সেই টাকা সুদে আসলে এখন তিন গুণ হয়েছে। তাহলে এখানে আত্মসাত হলো কোথায়?
তিনি বলেন, রায়টা বৃহস্পতিবার দেওয়ায় জনগণ আরও বেশি ক্ষুব্ধ হয়েছে। এটা একটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত রায়, সরকারের নির্দেশনায় রায়। কারণ আগেই পত্রিকায় ঘোষণা দিয়ে রায় হয়েছে। তাহলে জজের সাথে জেলারের কথা হয়েছিল নাকি যে বেগম জিয়ার শাস্তি হবে। যাই হোক, এতে বিএনপি লাভবান হয়েছে যদি তারা এটা গ্রহণ করতে পারে। কারণ বিএপির যে বর্তমান কমিটি আছে, তারা এখনো ঘুমায়। তারা এই সুযোগটা গ্রহণ করতে পারবে কিনা, এটাই দেখার বিষয়।
তিনি আরও বলেন, বেগম জিয়া পরিষ্কারভাবে বলে দিয়েছেন তার নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণভাবে গণতান্ত্রিক আন্দোলন করতে। তবে সরকার যদি তাদের ভাব প্রকাশ করতে না দেয়, তাদের রাস্তায় নামতে না দেয়, তাহলে একটা আশঙ্কা থাকতেও পারে। উগ্রবাদ আসবে কী, আসবে না এটা নির্ভর করে সরকারের উপর। কারণ বিএনপি তো এখন গণতান্ত্রিকভাবেই এগোচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*