Saturday , 5 December 2020
আপডেট
Home » তথ্য ও প্রযুক্তি » মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস জন্য ব্রিফিং সেশন আয়োজন করেছে হুয়াওয়ে
মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস জন্য ব্রিফিং সেশন আয়োজন করেছে হুয়াওয়ে

মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস জন্য ব্রিফিং সেশন আয়োজন করেছে হুয়াওয়ে

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : সম্প্রতি, লন্ডনে মিডিয়া ও বিশ্লেষকদের জন্য ব্রিফিং সেশন ‘প্রি-এমডব্লিউসি ২০১৮ (মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১৮)’ আয়োজন করেছে হুয়াওয়ে, যেখানে প্রতিষ্ঠানটি সকল শিল্পখাতকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে একটি সম্পূণরূপে সংযুক্ত ও বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন পৃথিবীর দিকে এগিয়ে যেতে দক্ষতা, সংযোগ, ব্যবসা, অভিজ্ঞতা ও অংশীদারিত্বের ব্যাপারে প্রথাগত সীমানা ও সীমাবদ্ধতার বাইরে গিয়ে সবাইকে একসাথে কাজ করার জন্য।
আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হবে ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১৮’। এমডব্লিউসি ২০১৮- এ হুয়াওয়ে ২০টির বেশি নতুন পণ্যের উদ্বোধনের পাশাপাশি, তিনশ’র বেশি অংশীদারদের সাথে কাজ করার ফলাফল সবার সামনে তুলে ধরবে। এমডব্লিউসি ২০১৮- এ হুয়াওয়ে মূলপ্রবন্ধ স্থাপন করবে, নানা ফোরামের আয়োজন করবে এবং ‘রোডস টু বেটার ফিউচার’- এ প্রতিপাদ্যের আলোকে আরও অন্যান্য অনেক কর্মসূচিতে সম্পৃক্ত হবে। প্রতিষ্ঠানটি শিল্পখাতের উন্নয়নে উন্নত ভবিষ্যতের জন্য শিল্পখাত সংশ্লিষ্ট সবার সাথে বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করবে। এছাড়াও, এমডব্লিউসি চলাকালে, হুয়াওয়ে এর সর্বাধুনিক পণ্য ও সমাধান প্রদর্শন করবে এর এবং এর অংশীদারদের সঙ্গে বিভিন্ন প্রেক্ষিতে ও অবস্থার ক্ষেত্রে নানা সমাধান তুলে ধরবে করবে।
এ নিয়ে হুয়াওয়ের বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক ও ক্যারিয়ার বিজনেস গ্রুপের প্রেসিডেন্ট রায়ান ডিং বলেন, ‘হুয়াওয়ে প্রযুক্তির উন্নয়নে তথ্য, স্বয়ংক্রিয়তা ও বুদ্ধিমত্তার ক্ষেত্রে উর্বর পরিবেশের জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিখাতের অবকাঠামো এবং স্মার্ট ডিভাইসের ওপর জোর দেয়। যেখানে অংশীদার প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কন্টেন্ট, অ্যাপ্লিকেশন ও ক্লাউড নিয়ে বেড়ে উঠতে পারবে। বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন পৃথিবীতে প্রবেশের পূর্বে, আমরা এখনও নানা প্রতিকূলতার সম্মুখীন হচ্ছি। টেকসই ব্যবসায় প্রবৃদ্ধি অর্জনে আমাদের দরকার বিদ্যমান সকল প্রতিকূলতা ও সীমাবদ্ধতা থেকে বেড়িয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলা। প্রথমে এটা করতে হবে অভ্যন্তরীণভাবে এবং পরে বাইরের দিকে।
চতুর্থ শিল্পবিপ্লব আসন্ন যার মূল ভিত্তি হবে আইসিটি নেটওয়ার্ক। আর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই)- এর অন্যতম সহায়ক হিসেবে কাজ করবে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লব আমাদের কাছে বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন এক পৃথিবী নিয়ে আসছে যেখানে সবকিছুই সংযুক্ত থাকবে এবং সবকিছুই হবে আলাদাভাবে বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*