Wednesday , 2 December 2020
আপডেট
Home » তথ্য ও প্রযুক্তি » বেসিস সফটএক্সপোর পর্দা নামছে
বেসিস সফটএক্সপোর পর্দা নামছে

বেসিস সফটএক্সপোর পর্দা নামছে

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত চার দিনব্যাপী আয়োজিত বেসিস সফটএক্সপোর পর্দা নামছে রবিবার সন্ধ্যায়।
শনিবার রাতে এর সমাপনী এবং পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
এ অনুষ্ঠানে মোস্তাফা জব্বার বলেন, দেশি সফটওয়্যার নির্মাতাদের জন্য বেসিস সফটএক্সপো দেশের সর্ববৃহৎ একটি প্লার্টফর্ম। এবারের চেষ্টা ছিল নীতিনির্ধারক পর্যায়ে দেশি সফটওয়্যারের সক্ষমতা এবং বিক্রয়োত্তর সেবা সম্পর্কে ভবিষ্যৎ ক্রেতাদের সুস্পষ্ট ধারণা দেয়া।
আগামী বছর আবারও এ সফটএক্সপোতে অংশ নেয়ার জন্য এখন থেকেই সবাইকে প্রস্তুতি নিতে বলেন। সরকারি-বেসরকারি খাতে দেশি সফটওয়্যারের গুণগত আর কৌশলগত মান তুলে ধরতে বেসিস কাজ করবে বলেও তিনি জানান।
সফটএক্সপোর আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বলেন, সারা দিনব্যাপী সেশনগুলোতে তরুণদের আগ্রহ আর উদ্দীপনা আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগ্রহী বিশেষ করে নড়াইল, চট্টগ্রাম, নেত্রকোনা এবং যশোর থেকে আগত তরুণেরা ফিল্যান্সার সেমিনারে অংশ নিয়েছে। এসব আগ্রহীদের কানেক্ট করতে আগামী দিনে বেসিস নতুন পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করবে।
বেসিস সভাপতি আলমাস কবীর বলেন, এ ধরনের একটি বড় আয়োজন করা সব সময়ই একটি চ্যালেঞ্জের কাজ। আর কাজটি যারা সহজ করেছেন তাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ। ইথিওপিয়া থেকে একটি প্রতিনিধি দল এবারের সফটএক্সপো পরিদর্শন করে আমাদের কাছে এ ধরনের আয়োজন করার পরামর্শ চেয়েছেন। অর্থাৎ বাংলাদেশ আইসিটি খাতে বর্হিবিশ্বে একটি রোল মডেল হিসেবে পরিচিত। আমাদের এ সুযোগটা কাজে লাগাতে হবে। আগামীতে আরও বড় ধরনের আয়োজনে বেসিস এখন থেকেই কাজ করবে।
এবারের সফটএক্সপোর বেস্ট স্টলের পুরস্কার পায় ‘আইপে’। বেস্ট মিনি প্যাভেলিয়ন নির্বাচিত হয় বেক্সিমকো অনলাইন লিমিটেড (বিওএল)। আর বেস্ট প্যাভেলিয়নের পুরস্কার জিতে নেয় ‘এরা ইনফোটেক’।
উদ্ভাবনী প্রকল্পে প্রথম রানার আপ হয় ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির দল কাকতাড়ুয়া, দ্বিতীয় রানার আপ হয় ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির রোবোটিক আর্ম। আর চ্যাম্পিয়নের পুরস্কার জিতে নেয় দেশি রোবট ‘ব্যাংরো’।
সফটএক্সপোকে পৃষ্ঠপোষকতা করার জন্য ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, বাংলালিংক, ব্যাংক এশিয়া, মাস্টার কার্ড, রিং আইডি, আইবিপিসি প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে আয়োজক কমিটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*