Friday , 23 October 2020
আপডেট
Home » খেলাধুলা » কুস্তিতে খুলনা চ্যাম্পিয়ন
কুস্তিতে খুলনা চ্যাম্পিয়ন

কুস্তিতে খুলনা চ্যাম্পিয়ন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বাংলাদেশ যুব গেমস চূড়ান্ত পর্বে তরুণ-তরুণী বিভাগে ১৪টি ওজন শ্রেণিতে পদক জয়ের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে শেষ হলো কুস্তি প্রতিযোগিতা। এই ডিসিপ্লিনে সেরা হয়েছে খুলনা। তারা ৪ স্বর্ণ, ১ রৌপ্য ও ৬ ব্রোঞ্জপদক জিতে চ্যাম্পিয়ন হয়। রানার্সআপ চট্টগ্রামের ছেলে-মেয়েরা পেয়েছে ৪টি স্বর্ণসহ মোট ৬টি পদক। প্রতিযোগিতার শেষ দিনে তরুণদের গ্রুপে ৪২ কেজি ওজন শ্রেণিতে যুব গেমসের মাধ্যমে ক্যারিয়ারে প্রথম স্বর্ণপদক জয়ের স্বাদ পেয়েছেন ময়মনসিংহের কৃষক পরিবারের ছেলে নাসির মিয়া। ৪৬ কেজিতে স্বর্ণ পান খুলনা বিভাগের সজিব হালদার। ৫০ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন রাজশাহী বিভাগের দেলোয়ার হোসেন। ৫৪ কেজিতে স্বর্ণ লাভ করে রিপন খান। ৫৮ কেজিতে স্বর্ণ জিতে নেন রংপুরের জয়ন্ত রায় এবং ৬৩ কেজিতে সেরা হন খুলনার নাঈম শেখ। বালক ৬৯ কেজিতে খুলনার আশিকুর রহমান স্বর্ণপদক জিতে নেন। এদিকে তরুণিদের ৩৮ কেজিতে স্বর্ণপদক জয় করেন রংপুর বিভাগের ফারিয়া আক্তার। ৪০ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন রাজশাহীর শিউলী আক্তার। এছাড়া ৪৩ কেজিতে চট্টগ্রামের সিবলিকা তালুকদার, ৪৬ ও ৪৯ কেজিতে একই বিভাগের যথাক্রমে মাসিনু মারমা, ও সইপ্ধসঢ়;রু মারমা, ৫২ কেজিতে স্বর্ণ জয় করে চট্টগ্রামের সরনিকা তালুকদার এবং ৫৬ কেজিতে রাজশাহী বিভাগের রাশিদা খাতুন স্বর্ণপদক জিতে নেন। তরুণদের ৪২ কেজিতে স্বর্ণ জয়ী ময়মনসিংহের ছেলে নাসির মিয়া বলেন, আমার খুবই ভাল লাগছে বড় কোন প্রতিযোগিতায় ক্যারিয়ারে প্রথম স্বর্ণ পদক জিতলাম। মাত্র ১৫দিন জাতীয় কুস্তি খেলোয়াড় আমজাদ হোসেন ভাইয়ের কাছে অনুশীলন করেছিলাম। কুস্তি খেলাটাই আমার সবচেয়ে বেশি ভাল লাগে। কিন্তু আমার বড় ভাই চাননি আমি কুস্তি খেলি। বাবা ও মায়ের উৎসাহে আমি কুস্তি খেলা শুরু করি। আমার স্বপ্ন ভবিষ্যতে বড় কুস্তিগীর হয়ে দেশকে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা থেকে পদক এনে দেয়া। খেলা শেষে বিজয়ীদের পদক পরিয়ে দেন বিওএ’র মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিওএ’র উপমহাসচিব আশিকুর রহমান
মিকু ও আসাদুজ্জামান কোহিনুর। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কুস্তি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান পালোয়ান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেসবাহ উদ্দিন আজাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*