Monday , 25 January 2021
আপডেট
Home » জাতীয় » জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন করবো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন করবো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি)-জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান হলে’ আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম

জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন করবো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি: আগামী নির্বাচন দলবিহীন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘জনগণকে সঙ্গে নিয়েই আমরা আগামী নির্বাচন করবো।’ শনিবার (১৭ মার্চ) দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি)-জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান হলে’ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, ‘বিরোধী দলবিহীন আরেকটি নির্বাচন করার নীল নকশা করছে সরকার।’ মওদুদ সাহেবকে বলতে চাই আপনি তো বহুরূপী, বহু দল করেছেন। সারা দুনিয়ায় যেমন জনগণকে সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন হয়, কোন দল এলো, না এলো, সেটা নিয়ে আলোচনা হয় না। তাই বলতে চাই, নির্বাচন হবে, জনগণকে সঙ্গে নিয়েই নির্বাচন হবে।’’
ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। এই বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের শক্তি থাকবে, নাকি ঘাতকের বাংলাদেশ হবে, অন্ধকার হবে নাকি আলোকিত হবে, তার প্রমাণ হবে আগামী নির্বাচনে। তাই ছাত্রলীগকে মনে রাখতে হবে, আগামী কয়েক মাস গুরুত্বপূর্ণ মাস। এই সময় চক্রান্ত হবে নির্বাচন ভণ্ডুল করার জন্য। তোমাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে ছাত্রলীগের বর্তমান প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারির নেতৃত্বে এই চক্রান্ত প্রতিহত করতে হবে।’
অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ তিনি, ‘বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, আওয়ামী লীগ দেওলিয়া হয়ে গেছে। তাই নির্বাচন দিতে ভয় পায়। আমরা তাদের বিনীতভাবে বলতে চাই, আপনারা এমন একটি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন, এমন একটি দলের কথা বলছেন, যার কথা বলার আগে আপনাদের লজ্জিত হওয়া উচিত ছিল। আপনাদের দলের নেত্রী খালেদা জিয়া। উনি এতিমের টাকা আত্মসাতের দায়ে আদালতের রায়ে সাজা পেয়ে জেলখানায় আছেনে। আপনাদের লজ্জিত হওয়া উচিত ছিল, আপনারা এই ধরনের নেত্রীর নেতৃত্বে দল পরিচালনা করছেন। আপনাদের লজ্জিত হওয়া উচিত ছিল, এমন একজনকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের দায়িত্ব দিয়েছেন, যিনি বিদেশের আদালতেও দণ্ডপ্রাপ্ত হয়েছেন। সিঙ্গাপুরের আদালতে তিনি ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*