Thursday , 26 November 2020
আপডেট
Home » খেলাধুলা » শনিবার থেকে শুরু সাউথ এশিয়ান আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশীপ
শনিবার থেকে শুরু সাউথ এশিয়ান আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশীপ

শনিবার থেকে শুরু সাউথ এশিয়ান আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশীপ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দেশে যে কয়েকটি সম্ভাবনাময় খেলা রয়েছে তারমধ্যে অন্যতম আরচ্যারি। তির-ধনুকের এই খেলায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সাফল্য পেতে এইমধ্যে দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ আরচ্যারি ফেডারেশন। তারই ধারাবাহিকতায় (২৪ মার্চ) শনিবার থেকে বিকেএসপির মাঠে গড়াচ্ছে সাউথ এশিয়ান আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশিপ।
দীর্ঘ এক দশক পর শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টের আয়োজক বাংলাদেশ আরচ্যারি ফেডারেশন। দক্ষিণ এশিয়ার তিরন্দাজদের সবচেয়ে বড় এই আরচ্যারি প্রতিযোগিতার পৃষ্ঠপোষক বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) ও দি ব্লেজার বিডি। বাংলাদেশ ছাড়া এরইমধ্যে চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছে ভারত, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। তবে ভিসা প্রাপ্তি সাপেক্ষে পাকিস্তান ও ভূটানেরও অংশগ্রহণের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আয়োজকরা। রিকার্ভ ও কম্পাউন্ড প্রতিটি ডিভিশনে পুরষ একক ও দলীয়, মহিলা একক ও দলীয় এবং মিশ্র দলীয় ইভেন্টে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। দুই ডিভিশন মিলিয়ে সর্বমোট ৬৩ জন প্রতিযোগী এবারের আসরে অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে রিকার্ভ ডিভিশনে ১৯ জন পুরুষ ও ১৫ জন মহিলা এবং কম্পাউন্ড ডিভিশনে ১৮ জন পুরুষ ও ১১ জন মহিলা অংশ নিচ্ছেন।
১০টি স্বর্ণ, ১০টি রৌপ্য ও ১০টি তাম্র পদকের জন্য চারদিন ব্যাপী চ্যাম্পিয়নশীপে আরচ্যার রা তীর ধনুক হাতে লড়াইয়ে নামবে। ২০০৬ সালে প্রথমবারের মত বিকেএসপিতে আয়োজিত সাউথ এশিয়ান আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশীপের মাধ্যমে বাংলাদেশের মাটিতে প্রথম কোন আন্তর্জাতিক আরচ্যারি প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়। ঐ আসরে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ান আরচ্যারিতে নবীণ দেশ হিসেবে অংশ নিলেও প্রায় এক যুগের অভিজ্ঞতায় এবারের আসরে শক্তিশালী ভারতের সাথে কঠিন লড়াইয়ে ইঙ্গিত দিয়েছেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপল। বিশেষ করে পুরুষ রিকার্ভ দলটি নিয়ে ফেডারেশন দারুন আশাবাদী। ২০০৮ সালে ভারতের জামশেদপুরে দ্বিতীয় আসর অনুষ্ঠিত হবার দীর্ঘ ১০ বছর পরে তৃতীয় আসর আয়োজনের কারন হিসেবে চপল দক্ষিণ এশিয়ান আর্চারির অবকাঠোমোগত দূর্বলতার কথা স্বীকার করেছেন। ভারত ও বাংলাদেশ ছাড়া অন্য কোন দেশে সেভাবে আরচ্যারির অবকাঠামো গড়ে উঠেনি বলেই এই ধরনের আয়োজনে দেশগুলোর খুব বেশী সাড়া পাওয়া যায়না।
আগামী শনিবার সকাল ১১টায় প্রধান অতিথি হিসেবে চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব শাহেদ রেজা। ২৭ মার্চ বিকেল ৩টায় সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ডাচ বাংলা ব্যাংক অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিকেএসপি’র মহা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামসুর রহমান, বাংলাদেশ আরচ্যারি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপল, সহ-সভাপতি আনিসুর রহমান ও সদস্য রফিকুল ইসলাম টিপু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*