Wednesday , 14 April 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » ১০ লাখ ৪.৫জি গ্রাহকের মাইলফলক উদযাপন রবির
১০ লাখ ৪.৫জি গ্রাহকের মাইলফলক উদযাপন রবির

১০ লাখ ৪.৫জি গ্রাহকের মাইলফলক উদযাপন রবির

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : দেশের বৃহত্তম ফোরজি নেটওয়ার্ক অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড’র অ্যাডভান্সড ৪.৫জি প্রযুক্তিতে ইতোমধ্যে ১০ লাখ গ্রাহক যোগ হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর রবি কর্পোরেট অফিসে দেশের ফোরজি যুগের প্রথম অপারেটর হিসেবে এ মাইলফল অর্জনকে উদযাপন করেছে অপারেটরটি।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি। এছাড়াও সম্মানিত অতিথি হিসেবে বিটিসিএল’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজ উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।
এসময় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন ও বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেডে’র পদস্থ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।
কোম্পানির এই মাইলফলক অর্জনকে উদযাপনের সময় রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ এবং ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

৪.৫ জি প্রযুক্তির নেটওয়ার্কে ১০ লাখ গ্রাহক হওয়ার মাইলফলক উদযাপন করেছে দেশের অন্যতম বৃহৎ মোবাইল ফোন অপারেটর রবি। বৃহস্পতিবার রাজধানীতে রবির কর্পোরেট অফিসে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ মাইলফলক উদযাপন করে প্রতিষ্ঠানটি। গত ফেব্রুয়ারিতে ৪.৫জি সেবা উদ্বোধনের পর থেকে দেশের ৪২৪টি থানায় ৪ হাজার ৭শটি’র বেশি ৪.৫জি সাইট নিয়ে এক বিস্তৃত ৪.৫জি নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে রবি। ২০ ফেব্রুয়ারি ফোরজি সেবা চালু হওয়ার পরপরই এই অসাধারণ নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ শুরু করে অপারেটরটি। এছাড়া ওই দিনই রবি দেশের একমাত্র অপারেটর হিসেবে ৬৪টি জেলায় ৪.৫জি সেবা চালু করে। এছাড়া এখন পর্যন্ত প্রায় চার লাখ গ্রাহক এয়ারটেল ফোরজি প্লাস সেবা গ্রহণ করেছেন। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, একজন বাংলাদেশি হিসেবে একটি শীর্ষ বহুজাতিক কোম্পানির নাম বাংলা শব্দ ‘রবি’ দিয়ে হওয়ায় আমি গর্বিত। রবি’র জন্য আমি আলাদা একটা টান অনুভব করি, কারণ এর ব্র্যান্ডে যে ফন্টটি ব্যবহৃত হয় তা আমার সৃষ্টি। অন্যান্য অপারেটরদের আগে এ মাইলফলক অর্জন করায় আমি রবি’কে ধন্যবাদ জানাই। প্রথম দিনই দেশের ৬৪টি জেলায় ফোরজি সেবা পৌঁছে দিয়ে ডিজিটাল দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টাকে সম্মান জানিয়েছে রবি। যখন আমি দেখি রবি চলনবিল ও হাওড় এলাকায় তাদের ৪.৫জি সেবা পৌঁছে দিয়েছে, তখন আমি আশ্বস্ত হই রবি শিগগিরই দেশের প্রতিটি আনাচে কানাচে তাদের ৪.৫জি সেবা দিতে পারবে। তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, টুজি বা থ্রিজি’র স্পিড দিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব না, এ জন্য দরকার ফোরজি এবং রবি ৪.৫জি গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বলে আমি আননন্দিত। দেশ হিসেবে আমরা ফোরজি সেবা চালু করতে পারব কিনা তা নিয়ে অনেকেরই সন্দেহ ছিল। কিন্তু রবি দেশের সব মানুষকে ৪.৫জি নেটওয়ার্কে যুক্ত করে সে সংশয় দূর করে দিয়েছে। দেশে ফোরজি প্রযুক্তি চালুর ক্ষেত্রে সরকারের আন্তরিক ভূমিকার জন্যই তা সম্ভব হয়েছে। এ মাইলফলককে রবি’র জন্য এক গুরুত্বপূর্ণ অর্জন আখ্যা দিয়ে কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ দেশব্যাপী রবি’র ৪.৫জি ও এয়ারটেলের ৪জি প্লাস সেবা সম্প্রসারণে সার্বিক সহায়তার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানান। এতো অল্প সময়ের মধ্যে ১০ লাখ গ্রাহকের মাইলফলক অর্জন করতে রবি’র কর্মকর্তা ও ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলের সদস্যদের অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্য তাদের ধন্যবাদ জানান তিনি। অনুষ্ঠানে মাহতাব বলেন, ফোর সেবা চালু করতে রবি প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে এবং এ বিনিয়োগ অব্যাহত থাকবে। এ বিপুল বিনিয়োগের মাধ্যমে রবি এ বছরের মধ্যে দেশের প্রতিটি থানায় ৪.৫জি সেবা পৌঁছে দেবে। ভবিষ্যতেও অব্যাহতভাবে সেবাটি সম্প্রসারণের প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

রবি’র এমডি অ্যান্ড সিইও বলেন, ফোরজি উপযোগী ডিভাইসের অপ্রতুলতাই ফোরজি ব্যবসা সম্প্রসারণের প্রধান বাধা। ফোর জি ডিভাইসের হার বাড়ানোর মাধ্যমে এ সেবার ইকো-সিস্টেম নিশ্চিত করতে সরকারকে অনুরোধ জানান তিনি। এছাড়া ফাইবার ও স্পেকট্রামের স্বল্পতাকে গুণগত নেটওয়ার্ক সেবা দেয়ার ক্ষেত্রে প্রধান সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে সরকারের প্রতি ফাইবার বাজারে মোবাইল ফোন অপারেটরদের বিনিয়োগের সুযোগ প্রদান এবং সাশ্রয়ী মূল্যে স্পেটকট্রাম সরবরাহের বিষয়টি নিশ্চিত করার আহবান জানান মাহতাব।
অগ্রগতি আশাব্যঞ্জক হলেও ভারসাম্যহীন বাজার প্রতিযোগিতা, অননেট ও অফনেট’র মতো জটিল মূল্য নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা, গ্রাহক প্রতি নিন্ম গড় আয় বিদ্যমান থাকায় রবি’র মতো ছোট অপারেটরদের মুনাফা অর্জন খুব কঠিন হয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।সব অপারটেরগুলোর ক্ষেত্রে পরিচালন ব্যয় কম বেশি প্রায় সমানই, কিন্তু রাজস্ব লক্ষ্যণীয়ভাবে কম।
এই অনুষ্ঠানে ৪.৫জি গ্রাহকদের জন্য টেলিযোগাযোগ খাতে এই প্রথমবারের মতো ডিজিটাল কাস্টমার সার্ভিস চ্যানেল- ‘ভিডিও চ্যাট’ও চালু করেছে রবি। ডিজিটাল দেশে রূপান্তরের লক্ষ্যে রবি’র নেয়া পদক্ষেপগুলোর মধ্যে এ সেবা অন্যতম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*