Friday , 23 April 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রথমার্ধ গোল শূন্য। দ্বিতীয়ার্ধও সেই দিকে এগোচ্ছিল। ম্যাচের ৮৪ মিনিটেও গোলের দেখা নেই। তাই স্বল্প সংখ্যক দর্শক গ্যালারি ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। কেউ কেউ হতাশ হয়ে হাঁটাও শুরু করে দিয়েছিলেন। কিন্তু না মন খারাপ করে বাড়ি ফিরতে হয়নি তাদের। ৮৫ মিনিটে দর্শকদের মাঝে আনন্দের উপলক্ষ এনে দেন তপু বর্মন। তার একমাত্র গোলে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ১২তম আসরের সেমিফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ।
বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপুর্ণ ম্যাচে পাকিস্তানকে ১-০ গোলে হারিয়ে দীর্ঘ ৯ বছর পর আবার শেষ চারে এক পা দিয়ে রাখল লাল সবুজরে দল। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে নেপালের সাথে ড্র করলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে জেমি ডের শিষ্যদের।ম্যাচের শুরু থেকেই নিজেদের রক্ষণ ঠিক রেখে আক্রমণে যায় বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। ফলে কোনও দলই কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি। নবম মিনিটে বক্সের ভেতর থেকে ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ আলীর হেড ছিলো নিশ্চিত গোল। লাফিয়ে উঠে বল ফিস্ট করে বাংলাদেশকে এ যাত্রা গোল হজমের হাত থেকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক শহিদুল আলম সোহেল।
২০ মিনিটে প্রায় মাঝ মাঠে মেহমুদ খানের ফ্রি কিকও গোল হতে পারতো। সৌভাগ্য বাংলাদেশের বক্সে বল পেয়ে সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি পাকিরা। ৩২ মিনিটে প্রথম কর্ণার আদায় করে নেয় বাংলাদেশ। তবে তা থেকে কোন সুবিধা আদায় করে নিতে পারেনি। ফলে গোল শূণ্য থেকেই বিরতিতে যায় বাংলাদেশ ও পাকিস্তান।
বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে গোল পেতে মরিয়া বাংলাদেশ আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে। ৫২ মিনিটে বিশ্বনাথের থ্রো থেকে জটলায় বল পায় বাংলাদেশ। কিন্তু পাকিস্তানের শক্ত ডিফেন্স ভাঙ্গতে ব্যর্থ হয়েছেন মামুনুলরা। ৫৫ মিনিটে বা প্রান্ত দিয়ে পাকিস্তানের ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ আলীর শট ডাইভ দিয়ে কোনমতে রক্ষা করেন শহীদুল। ৫৮ মিনিটে বক্সের বেশ দূর থেকে বিপলু আহমেদের শট ফিস্ট করেন পাকিস্তানি গোলরক্ষক। অল্পের জন্য গোল হাতছাড়া হয় স্বাগতিকদের।
৮২ মিনিটে বক্সের ডান প্রান্তে ফ্রি কিক পায় বাংলাদেশ। মামুনুলের বাড়ানো বল পোস্টে রাখতে পারেননি তপু বর্মন। তবে ৮৫ মিনিটে বাংলাদেশের সমর্থকদের পেক্ষার অবসান ঘটান তপু বর্মন। বা প্রান্ত থেকে বিশ্বনাথের লম্বা থ্রো থেকে বল পেয়ে পোস্টের খুব কাছ থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন এই ডিফেন্ডার (১-০)। টুর্নামেন্টে এটি তার দ্বিতীয় গোল। ভুটানের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচেও একটি গোল করেছেন তিনি। এই গোলেই ৯ বছর পর আবারও সাফের সেমিফাইনালের পথে এক পা দিয়ে রাখল জেমি ডের শিষ্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*