Friday , 23 April 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » অপো এফ৯-এর প্রতিটি ফিচারেই অবিশ্বাস্য সাফল্য
অপো এফ৯-এর প্রতিটি ফিচারেই অবিশ্বাস্য সাফল্য

অপো এফ৯-এর প্রতিটি ফিচারেই অবিশ্বাস্য সাফল্য

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : সম্প্রতি বাজারে এসেছে অপো-এর লেটেস্ট ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস এফ নাইন। ফোনটির প্রায় প্রতিটি ফিচারই একেবারেই নতুন এবং অপো এসব ফিচারে অবিশ্বাস্য সাফল্য দেখিয়েছে। এই ফোনের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ভিওওসি ফ্ল্যাশ চার্জিং এবং গ্র্যাডিয়েন্ট কালার ডিজাইন, যা ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন এক অভিজ্ঞতা। অপো এফ নাইন এর বিশেষ কয়েকটি ফিচারের রিভিউ তুলে ধরা হলো –   ব্যাটারি : ভিওওসি-এর সাথে র‌্যাপিড চার্জ
বাংলাদেশের মার্কেটে মোবাইলে চার্জ সমস্যা খুবই সাধারণ। এই বিবেচনায়, অপো এফ নাইন স্মার্টফোনে নিয়ে এসেছে বুক(ভিওওসি) ফ্ল্যাশ চার্জ। আপনার যদি অনেক ব্যস্ততা থাকে তবে, আপনি মাত্র পাঁচ মিনিট চার্জ দিয়ে দুই ঘণ্টা কথা বলতে পারবেন। ভিওওসি, ভোল্টেজ কমানো সার্কিট এর পরিবর্তে এমসিইউ নিয়ে এসেছে- যা হ্যান্ডসেটকে অতিরিক্ত গরম হওয়া থেকে বিরত রাখে। ভিওওসি হচ্ছে দ্রুততম চার্জিং প্রযুক্তি। ভিওওসি প্রযুক্তি থাকায় চার্জিং অবস্থায় হ্যান্ডসেট নিরাপদে ব্যবহার করা যাবে। অপো ২০১৪ সালে ভিওওসি নিয়ে আসার পর থেকে এটি ৫০০টি প্যাটেন্টে ব্যবহৃত হচ্ছে এবং ৯০ মিলিয়নেরও বেশি গ্রাহক এটি ব্যবহার করছেন। অপো এই এফ৯ ফোনটিতে ৩,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি নিয়ে এসেছে।                                                                      ডিজাইন: ওয়াটারড্রপ স্ক্রিনের সাথে গ্র্যাডিয়েন্ট কালার
অপো-এর তিনটি গ্র্যাডিয়েন্ট কালার কম্বিনেশন রয়েছে। এগুলো হচ্ছে- সানরাইজ রেড, টোয়েলাইট ব্লু এবং স্ট্যারি পার্পেল। অপো-এর এই ফোনের পিছন দিকে গ্র্যাডিয়েন্ট ডিজাইনের সঠিক সমন্বয় নিশ্চিত করতে এতে ব্যবহৃত হয়েছে গ্র্যাডিয়েন্ট স্প্রেইং এবং ‘ফ্রেম গ্র্যাডিয়েন্ট’ প্রযুক্তি। রোদের মধ্যে অপো এফ নাইন ফোনটি ক্রিস্টাল রত্ন এবং প্রবাহমান পানির মতো ঔজ্জ্বল্য দেয়, যা গ্রাহককে দেবে ফোন ব্যবহারের এক অসাধারণ অনুভূতি। এই গ্র্যাডিয়েন্ট ডিজাইনের পাশাপাপাশি এর স্ক্রিনটিও চমৎকার।
অপো, পানির ফোঁটা থেকে উৎসাহিত হয়ে এতে ছোট ফোঁটাকৃতি আকার দিয়েছে যার নাম ‘ওয়াটারড্রপ স্ক্রিন’। এতে রয়েছে ১০৮০*২৩৪০ রেজ্যুলেশনের ৬.৩ ইঞ্চি বেজেল বিহীন স্ক্রিন যার অ্যাস্পেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯ এবং যা একটি ৯০.৮% সুপার-হাই স্ক্রিন-টু-বডি অনুপাত।   ক্যামেরা : সেলফি এক্সপার্ট থেকে পোট্রেট আর্টিস্ট
ডিভাইসটিতে রয়েছে এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ ২৫ মেগাপিক্সেল সেন্সর এইচডিআর ফ্রন্ট ক্যামেরা। যার ফলে সেলফি তোলার পর মনে হবে অপো সত্যিই সেলফি এক্সপার্ট। এর এফ ১.৮+এফ ২.৪ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ ১৬ মেগাপিক্সেল+২ মেগাপিক্সেল ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা দিবে একজন পোট্রেট আর্টিস্টের কার্যক্ষমতা। এফ৯ হ্যান্ডসেটটির ভিডিও মোড ১০৮০ পিক্সেল, স্লো-মোশন ৭২০ পিক্সেল, ১২০ এফপিএস।
এর এআই বিউটি প্রযুক্তি ২.১ ব্যবহারকারীদের ৮ মিলিয়ন পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের পারসোনালাইজ্ড বিউটিফিকেশন ইফেক্ট দিতে পারে, যার ফলে ব্যবহারকারীরা সেলফিতেও পাবেন জীবন্ত ছবির অভিজ্ঞতা। এই স্মার্টফোনের ক্যামেরা দিয়ে ফটোগ্রাাফি করতে ব্যবহারকারীরা পাবেন ডিএসএলআর-এর অনুভূতি।  কার্যক্ষমতা : কালারওএস ৫.২ এআই ইনটুটিভ সিস্টেম
অ্যান্ড্রয়েড ৮.১ এর ভিত্তিতে, গ্রাহকদের ফোন ব্যবহারে আরও অনন্য অভিজ্ঞতা দিতে অপো নিয়ে এসেছে কালারওএস ৫.২ অপারেটিং সিস্টেম।
অপো এফ নাইন গুগল লেন্স-এর সাথে সংযুক্ত যা বিভিন্ন অবজেক্ট চিহ্নিত করতে পারে এবং সেই সম্পর্কিত ফলাফল ও তথ্য দিতে পারে। এই হ্যান্ডসেটে আরও রয়েছে ৪জিবি/৬জিবি + ৬৪ জিবি মেমরি, যেটি ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে। গ্রাহকদের আরও সন্তুষ্টি দিতে এতে রয়েছে মাল্টিপল সিম কার্ডস, তিনটি কার্ড স্লট- দুটি সিম কার্ডের জন্য এবং একটি স্টোরেজ কার্ডের জন্য।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*