Saturday , 17 April 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে মালদ্বীপ-নেপালের একই লক্ষ্য, ফাইনাল খেলা
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে মালদ্বীপ-নেপালের একই লক্ষ্য, ফাইনাল খেলা

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে মালদ্বীপ-নেপালের একই লক্ষ্য, ফাইনাল খেলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আগামীকাল বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে হিমালয়ের দেশটি। পরিসংখানে এগিয়ে মালদ্বীপ। সাফে কখনো মালদ্বীপকে হারাতে পারেনি নেপাল। তবে এবারের আসরে শক্তিশালী বাংলাদেশকে হারিয়ে গ্রুপ এ’ থেকে চ্যাম্পিয়ন হিসেবেই সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ চ্যাম্পিয়নরা।
অপরদিকে তিন দলের গ্রুপে পড়েই মুলত ভাগ্য খুলেছে মালদ্বীপের। কারণ গ্রুপ পর্বে যেখানে দুই ম্যাচে জয় পাবার পরও শেষ চারে জায়গা হয়নি স্বাগতিক বাংলাদেশের, সেখানে কোন ম্যাচে না জিতে কোন গোল না করেই শুধুমাত্র একটি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ড্র করে এক পয়েন্ট নিয়েই শেষ চারে খেলার সুযোগ লাভ করেছে মালদ্বীপ। তাও আবার লটারীর সহায়তা নিয়ে।
নেপাল গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হলেও গ্রুপের বাকী দুই ম্যাচে যথাক্রমে ভুটানকে ৪-০ গোলে এবং বাংলাদেশকে ২-০ গোলে হারিয়ে গোল ব্যবধানে শেষ চারে জায়গা করে নেয়। গ্রুপে বাংলাদেশ, নেপাল ও পাকিস্তান সমান সংখ্যক ৬ পয়েন্ট করে সংগ্রহ করলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে স্বাগতিকরা।
জটিল সমীকরণ পেরিয়ে গ্রুপ পর্ব পার করলেও এখন ফাইনাল ছাড়া কিছু ভাবছেনা নেপাল। আসন্ন ম্যাচকে সামনে রেখে আজ নেপালের প্রধান কোচ বাল গোপাল মহারজন বলেন, আমরা ভালো অবস্থায় আছি। দলে ইনজুরি নেই। নিজেদের যোগ্যতা প্রমান করেছি গ্রুপ পর্বে। কালও আরেকবার নিজেদের প্রমাণ করবো। সর্বশেষ আমরা দুই ম্যাচে মালদ্বীপকে হারিয়েছি। আমরা আত্ববিশ্বাসী। কালকে ম্যাচে জয়ী হয়ে আমরা ফাইনাল খেলবো।
তিনি বলেন, আগামীকাল নেপালী ফুটবলের জন্য একটি নতুন ইতিহাস রচনা করতে সক্ষম হবো। খেলোয়াড়রা আগের মতো খেলতে পারলে ফাইনাল নিশ্চিত। ছেলেদের ওপর আমার বিশ্বাস আছে। ফেভারিট হিসেবেই মাঠে নামবো। এরই মধ্যে আসরে সাত গোল করেছি। কালও আশা করি গোল পাবো।
এক প্রশ্নের জবাবে নেপালের এই কোচ বলেন, ফুটবলে ভাগ্যের সহায়তায় জয় পাবার সুযোগ থাকে মাত্র ১০ ভাগ। বাকী ৯০ শতাংশ নির্ভর করে কঠোর নিয়মানুবর্তিতা এবং প্রত্যয় নিয়ে খেলার ওপর।
নেপালের অধিনায়ক বিরাজ মহারজন বলেন, কাল আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দিন। আশা করি দেশের জন্য কিছু একটা করে দেখাতে পারবো। এ জন্য আমরা রোমাঞ্চিত এবং আত্ববিশ্বাসী। তবে অতিমাত্রায় আত্ববিশ্বাসী নই।
পক্ষান্তরে গ্রুপ পর্বে ভালো খেলতে না পারলেও ফাইনালে যাবার বিষয়ে আশাবাদী মালদ্বীপের কোচ পিটার সেগার্ট। জার্মানীর এই কোচ সাংবাদিকদের বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে খেলার সময় কয়েকজন ফুটবলার ইনজুরিতে পড়েছিল। এমনটা হতেই পারে। তবে সেই ইনজুরি নিয়ে চিন্তিত নই আমরা। যারা খেলার উপযুক্ত তাদের নিয়ে কাল সেমি ফাইনালে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত আছি।
তিনি বলেন, নেপাল অবশ্যই শক্তিশালী দল। তবে আমরাও আগের চেয়ে ভালো খেলার চেষ্টা করবো। ফাইনালে খেলার লক্ষ্য পূরণের জন্য আমরা সেরাটাই দেয়ার চেষ্টা করবো। আশাকরি সফল হবো। অতীত নিয়ে আমি ভাবছি না। সেটা আমার কাছে মূখ্য বিষয় নয়। আমার কাছে এ মুহুর্তে বড় বিষয় রেজাল্ট। যেহেতু এটা সেমি-ফাইনাল, তাই জয়-পরাজয় থাকবেই। আমরা জয়ের জন্যই খেলবো। সে অপেক্ষাতেই আছি।
দলের স্ট্রাইকার মোহাম্মদ মুসতহাজ বলেন, কাল খেলার জন্য আমরা প্রস্তুত। ফাইনালে যাওয়ার জন্য নিজেদের সর্বস্ব দিয়ে চেষ্টা করবো।
উল্লেখ্য, সাফের ইতিহাসে ছয়বার পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছিল নেপাল ও মালদ্বীপ। তন্মধ্যে চার ম্যাচেই হেরেছে নেপাল। বাকী দুটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। দল দুটি এ পর্যন্ত ১৫ বার পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছে। এতে মালদ্বীপ সাতটিতে এবং নেপাল চার ম্যাচে জয়লাভ করেছে। বাকী চার ম্যাচ ড্র হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*