Wednesday , 12 May 2021
আপডেট
Home » অনলাইন » ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত : ফখরুল
ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত : ফখরুল

ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত : ফখরুল

ডেস্ক রিপোর্ট: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনাকে ‘রাজনীতির জন্য অশনি সংকত’ হিসেবে দেখছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ সোমবার বিকেলে হাসপাতালে চিকিসাধীন আহত নেতা-কর্মীদের দেখার পর তিনি এই মন্তব্য করে হামলার ঘটনার নিন্দা জানান।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘অত্যন্ত সফল সম্মেলন ও নির্বাচনের ছাত্র রাজনীতিতে ছাত্রদল নতুন উদ্যোগ নিয়ে নতুন একটা স্বপ্ন সৃষ্টি করে বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতিতে প্রবেশ করছিল ঠিক সেই সময়ে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা বিশেষ করে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা আজকে ছাত্র দলের প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারিসহ নেতা-কর্মীদের ওপরে যে আক্রমণ চালিয়েছে- এটা শুধু ন্যাক্কারজনকই নয়, এটা বাংলাদেশের রাজনীতির জন্য অশনি সংকেত মনে করছি। আমরা মনে করি, ছাত্রদলের ওপরে এই হামলা গণতন্ত্রের ওপরে হামলা। আমরা এই হামলা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং হামলার সাথে জড়িতদের শাস্তি দাবি করছি।’
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগ কর্মীদের হামলায় ২০ থেকে ৩০ জন আহত হয়েছে। আজ সোমবার তুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে হাকিম চত্বর, দোয়েল চত্বর ও টিএসসিতে দফায় দফায় এই হামলায়র সময়ে দায়িত্ব পালনরত তিন সাংবাদিকও আক্রান্ত হন।
মির্জা ফখরুল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সব সময় সন্ত্রাসী দল, ছাত্রলীগ তো বটেই। ছাত্র রাজনীতির যে একটা নতুন অধ্যায় সৃষ্টি করতে যাচ্ছিল ছাত্রদল, সেই অধ্যায়কে সমূলে বিনষ্ট করবার জন্যে একটা পায়তারা। কারণ বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় গত কয়েদিন ধরে আমরা যা দেখছি যে চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, সব রকমের অন্যায়-অপকর্ম তারা করছে। সন্ত্রাস তারা সব সময় করে এসছে। সেই সন্ত্রাসের একটা নজির আজকে দেশবাসী দেখতে পেল। আমরা বিশ্বাস করি, যে সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ছাত্রদল যেভাবে জেগে উঠেছে এই ছাত্রদল নিশ্চয়ই নি:সন্দেহে তারা অত্যন্ত সুসংগঠিত হতে পারবে এবং দেশের ছাত্র রাজনীতিতে বিশেষ করে গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ক্ষেত্রে তারা তাদের যে অবদান, সেই অবদান অবশ্যই রাখতে সক্ষম হবে। সন্ত্রাসীরা কখনো জয়ী হতে পারে না। তারা অবশ্যই এই ছাত্র দলের নেতৃত্বেই পরাজিত হবে।’
বিকেল সাড়ে ৪টায় বিএনপি মহাসচিব কাকরাইলে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে আহত নেতা-কর্মীদের দেখতে যান। তিনি তাদের কাছ থেকে ঘটনার বিবরণ শুনেন।
বিএনপি মহাসচিব এসব আহত নেতা-কর্মী তাদের চিকিসার খোঁজ-খবরও নেন। এ সময়ে সাবেক ছাত্র নেতা খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, শহিদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, শহিদুল ইসলাম বাবুল, ডা. রফিকুল ইসলাম, ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারি অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী আহতদের দেখতে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*