Saturday , 7 December 2019
আপডেট
Home » অনলাইন » দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারসাজির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে : ওবায়দুল কাদের
দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারসাজির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে : ওবায়দুল কাদের
সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারসাজির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে : ওবায়দুল কাদের

ডেস্ক রিপোর্ট: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারসাজির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে।
তিনি বলেন, ‘মার্কেট কন্ট্রোল করা দরকার। অসাধু ব্যবসায়ীরাও আছে, তারাও কারসাজি করে। সেগুলো নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এবং কারসাজিটা যাতে বন্ধ হয় সে ব্যাপারে সরকারও কঠোর অবস্থানে আছে।’
ওবায়দুল কাদের বুধবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, অস্বাভাবিক পরিস্থিতি, কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে সেটার মোকাবিলায় তো সরকারকে কঠোর হতেই হবে।
পেঁয়াজের এই পরিস্থিতি কতদিন চলবে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার মনে হয় বেশিদিন চলবে না। স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে। একটা অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, এই অবস্থা স্বাভাবিক হতে হয়তো কিছু সময় লাগবে। এটা ঠিক হয়ে যাবে। সরকার সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে।’
সব ধরনের সবজি ও পণ্যের দামও ঊর্ধ্বমুখী- এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, মাঝে মাঝে এমন অবস্থা হয়। কতগুলো কারণ আছে, কিছু গুজব ছড়িয়ে সংকট সৃষ্টি করা হয়। আমাদের দেশে এটি চলে। তাছাড়া এখানে কথায় কথায় পরিবহন ধর্মঘট এ কারণেও সরবরাহ লাইনটি দুর্বল হয়ে যায়। আমার মনে হয় আস্তে আস্তে শীত আসছে, শাক-সবজির বাজারেও স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে।
ক্যাসিনো অভিযানের মধ্য দিয়ে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান থেমে গেছে কিনা এমন প্রশ্নের পরে তিনি বলেন, কে বলেছে থেমে গেছে? এখনো ব্যাংক হিসাব তলব, দুদকের মামলা দেওয়া, চার্জশিট দেওয়াসহ সকল প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এখনো অনুসন্ধান চলছে অভিযানের সার্বিক প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে, সময় মত আরো দেখতে পাবেন।
ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের জন্য প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচন আমরা ভালোভাবে করতে চাই এবং আমরা বিজয়ী হতে চাই। সিটি নির্বাচন যথাসময়ে হবে বলেই ঢাকা দুই মহানগরের সম্মেলন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ঢাকা মহানগরীর দুই সিটিকে ক্লিন ইমেজের নেতৃত্ব উপহার দেওয়া হয়েছে, এটা করা হয়েছে আগামী সিটি নির্বাচনে জিততে।
আওয়ামী লীগের দুই সিটি নির্বাচনে প্রার্থী তালিকায় পরিবর্তন আসছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের মনোনয়ন বোর্ড রয়েছে, তারা এটা নিয়ে ভাববেন। শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মনোনয়ন বোর্ড বসে সিদ্ধান্ত নেবেন। তবে এখন আমরা প্রার্থী খুঁজছি এবং চিন্তাভাবনা করছি।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদে নতুন মুখ আসছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আপনাদের বারবার এ কথাই বলেছি যে, এটি আওয়ামী লীগ সভাপতির এখতিয়ার। আমাদের সভাপতি যেটা ভালো মনে করবেন সেটাই হবে। কারণ উনি আমাদের কাউন্সিলরদের মাইন্ড সেটাপ ভালো করেই জানেন। আমাদের কাউন্সিলররাও সবসময় নেত্রীর ওপর আস্থা রাখেন। নেত্রী যেটা সিদ্ধান্ত নেবেন সেই সিদ্ধান্তে আমাদের কোনো দ্বিমত নেই, এতে আমি সাধারণ সম্পাদক থাকি আর না থাকি সেটা প্রশ্ন নয়।
এর আগে সকালে সচিবালয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস।
সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতের সাথে চলমান ৬/৭টি প্রকল্প গতিশীল করার বিষয়েও ভারতীয় হাইকমিশনারের সাথে আলোচনা হয়েছে।
ভারতের পুশইন চেষ্টার বিষয়ে সংবাবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ভারতীয় হাই কমিশনার আমাকে বলেছেন, ভারতের এনআরসি নিয়ে আমাদের উদ্বেগের কিছু নেই। ভারতের পুশইন চেষ্টার বিষয়টি অপপ্রচার।
ওবায়দুল কাদের বলেন, এনআরিসি নিয়ে তারা (ভারত) বার বারই বলেছে আমাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি বা ঘটবে না। ভারত সরকার এবং এমনকি সে দেশের প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং (নরেন্দ্র মোদি) এ ব্যাপারে আমাদের আশ্বস্ত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*