Friday , 26 February 2021
আপডেট
Home » অনলাইন » টিকাদান সফল করতে সবাই আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করুন: প্রধানমন্ত্রী
টিকাদান সফল করতে সবাই আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করুন: প্রধানমন্ত্রী

টিকাদান সফল করতে সবাই আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করুন: প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট: কভিড-১৯ প্রতিরোধক টিকাদান কর্মসূচি সফল করতে সবাইকে আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, আমরা সবার সহযোগিতা চাই। যেন সবকিছু সুষ্ঠুভাবে হয়, সেজন্য সবাই একটু নজর রাখবেন, ইনশাল্লাহ এ অবস্থা থেকে আমরা উত্তরণ ঘটাব।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আজকে যে যাত্রা শুরু করলাম, এর মাধ্যমে আমাদের দেশের মানুষ করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি পাবে। আমরা সেটারই চেষ্টা করছি। বাংলাদেশ জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ হিসেবেই গড়ে উঠবে বলেও দৃঢ় প্রত্যয় পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি। খবর বাসসের
বুধবার বিকেলে দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে নার্স, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, সেনাসদস্যসহ পাঁচজন করোনা টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। প্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরোনিকা কস্তা। প্রথম দফায় টিকা গ্রহণকারী পাঁচজনের সঙ্গেই কুশল বিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী। সবাইকে অভিনন্দন জানান তিনি।
উদ্বোধনের পরপরই সারাদেশে টিকাদানের নিবন্ধনের জন্য অনলাইন ‘সুরক্ষা’ অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন কার্যক্রম চালু করা হয়েছে (www.surokkha.com.bd) ।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের দিনটি বাংলাদেশের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন। কেননা বিশ্বের অনেক দেশই এখনও টিকা দান কর্মসূচি শুরু করতে পারেনি। সেখানে আমাদের মতো একটি ঘনবসতিপূর্ণ দেশ পেরেছে।
তিনি বলেন, সীমিত অথনৈতিক সম্পদ নিয়েও আমরা যে মানুষের কল্যাণে কাজ করি সেটাই আজকে প্রমাণিত হলো।
অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত করোনাভাইরাসের টিকা সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। সেরাম, বাংলাদেশ সরকার এবং বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত কোভিডশিল্ড নামে তিন কোটি ৪০ লাখ ডোজ টিকা কিনেছে বাংলাদেশ। এরইমধ্যে ভারতের উপহার হিসেবে পাঠানো ২০ লাখ ডোজ টিকা এবং কেনা টিকার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা দেশে এসে পৌঁছেছে। পরবর্তী প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে টিকা আসবে বাংলাদেশে।
অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কেউ করোনা টিকা পাবেন না বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*