Tuesday , 15 June 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » আইএসএসএফ ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশীপ আরচ্যারিতে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ
আইএসএসএফ ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশীপ আরচ্যারিতে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

আইএসএসএফ ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশীপ আরচ্যারিতে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ইসলামী সলিডারিটি স্পোর্টস ফেডারেশন (আইএসএসএফ) ইন্টারন্যাশনাল আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে ছয়টি সোনাসহ মোট ৯টি পদক জিতে সেরা হয়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় আসরে রিকার্ভ ও কম্পাউন্ড ইভেন্টের একক ও দলগত মিলিয়ে ১০ ইভেন্টের ৯টির ফাইনালে উঠে সেই লক্ষ্য ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা সৃস্টি করেছিল লাল সবুজ জার্সিধারী তীরন্দাজরা। বুধবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার চতুর্থ দিনে রিকার্ভ ও কম্পাউন্ড ইভেন্টের একক ও দলগত মিলিয়ে ১০ ইভেন্টের ফাইনালে পাঁচটি জিতেছে বাংলাদেশের তীরন্দাজরা। অর্থাৎ গত আসরের চেয়ে একটি স্বর্ণ কমেছে স্বাগতিকদের। তবে ৫টি সোনা, ৫টি রূপা ও একটা ব্রোঞ্জ মিলিয়ে মোট ১১টি পদক নিয়ে আবারও সেরা হয়েছে বাংলাদেশ।
একটি সোনা ও ২টি রুপাসহ সর্বমোট চারটি পদক নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থান নিশ্চিত করেছে ইরাক। পদক তালিকার তৃতীয় অবস্থানে থাকা তুরস্ক জয় করেছে একটি সোনা ও একটি রৌপ্য পদক। এছাড়া একটি করে সোনার পদক নিয়ে তালিকার পরবর্তী স্থান দখল করেছে যথাক্রমে সৌদি আরব, এস্তোনিয়া ও আজারবাইজান।
এবারের আসরে বাংলাদেশ একটি স্বর্ন পদক কম পেলেও রৌপ্য পদক পেয়েছে বেশী। গত বছর অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ ৬টি সোনার পদক পেলেও এবারের আসরে পেয়েছে ৫টি। অপরদিকে গত আসরে একটি মাত্র রৌপ্য পদক পেলেও এবার পেয়েছে ৫টি রৌপ্য।
এদিন প্রতিযোগিতায় কম্পাউন্ড পুরুষ এককে বাংলাদেশের অসীম কুমার দাস ১৪০-১৩৪ স্কোরের ব্যবধানে স্বদেশী মো. আবুল কাশেম মামুনকে, কম্পাউন্ড মহিলা এককে বাংলাদেশের রোকসানা আক্তার ১৩৬-১৩৩ স্কোরের ব্যবধানে ইরাকের আল মাসহাদানী ফাতিমাকে, কম্পাউন্ড মিশ্র দলগত বিভাগে ইরাকের আল মাসহাদানী ফাতিমা ও সাখান ওয়ালিদ হামিদ জুটি ১৪৬-১৪৩ স্কোরের ব্যবধানে বাংলাদেশের অসীম কুমার দাস ও রোকসানা আক্তার জুটিকে হারিয়ে সোনার পদক জয় করেন।
এছাড়া কম্পাউন্ড পুরুষ দলগত বিভাগে অসীম কুমার দাস, মো. আবুল কাশেম মামুন ও মো. মিলন মোল্লার সম্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ দল ২২৫-২০৫ স্কোরের ব্যবধানে আল দাঘান ইসহাক, ফাইয়াধ আব্দুল্লাহ্ ও মোতির আমিরকে নিয়ে গঠিত ইরাক দলকে এবং কম্পাউন্ড মহিলা দলগত বিভাগে রোকসানা আক্তার, বন্যা আক্তার ও রিতু আক্তারকে নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ দল ২১৬-১৫২ স্কোরের ব্যবধানে এল আসাদি কাদিয়া, এল ফাইজ সৌদ ও কারদাউদ ফাতিমা জাহরাকে নিয়ে গঠিত মরক্কোকে হারিয়ে স্বর্ন পদক জয় করে।
রিকার্ভ পুরুষ এককে সৌদিআরবের বিনালী আবদালেলাহ ৭-১ সেট পয়েন্টে বাংলাদেশের মো. রোমান সানাকে, রিকার্ভ মহিলা এককে এস্তোনিয়ার পারনাট রিনা ৭-১ সেট পয়েন্টে তুরস্কের উনসাল বেগুনহানকে হারিয়ে স্বর্ন জয় করেন।
রিকার্ভ মিশ্র দলগত বিভাগে বেরেকেত বুকার ও উনসাল বেগুনহানকে নিয়ে গঠিত তুরস্ক ৫-১ সেট পয়েন্টে বাংলাদেশের মো: রুমানা সানা ও নাসরিন আক্তার জুটিকে, রিকার্ভ পুরুষ দলগত বিভাগে মো. রোমান সানা, মোহাম্মদ তামিমুল ইসলাম ও শেখ সজিবকে নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ ৫-১ সেট পয়েন্টে নাগারকোটি রুশান, শেরচান অসীম ও পুন মাগার তিলককে নিয়ে গঠিত নেপালকে এবং রিকার্ভ মহিলা দলগত বিভাগে গাসিমোভা অজি, ইবাদোভা সুঘরাগহানিম ও রামাজানোভা ইয়ালাগুলকে নিয়ে গঠিত আজারবাইজান ৫-৪ সেট পয়েন্টে নাসরিন আক্তার, বিউটি রায় ও মোসাম্মৎ রাদিয়া আক্তার শাপলাকে নিয়ে গঠিত বাংলাদেশকে হারিয়ে সোনা জয় করে। চ্যাম্পিয়নশিপে শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন যুব ও ক্রীড়া উপ-মন্ত্রী আরিফ খান জয়। বাংলাদেশ আরচ্যারি ফেডারেশনের সভাপতি লে: জেনারেল অব. মো. মইনুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দীন আহমেদ চপল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*