Tuesday , 22 June 2021
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে জিমির ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক,মোহামেডানের জয়
প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে জিমির ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক,মোহামেডানের জয়

প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে জিমির ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক,মোহামেডানের জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক : গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। আগের দুই ম্যাচে বর্তমান রানার্স আপ ঢাকা আবাহনী ও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মেরিনার্সকে হারানোর পর নিজেদের দশম ম্যাচেও বড় জয় পেয়েছে ঐতিহ্যবাহী সাদা কালো জার্সিধারীরা।
শনিবার (২৬ মে) মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। তিনটি গোলই এসেছে অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমির স্টিক থিকে। ফলে লিগে ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক পেয়েছেন জাতীয় হকি দলের এই অধিনায়ক।
এদিন ম্যাচের দশম মিনিটেই গোলের দেখা পায় মোহামেডান। এ সময় ভারতীয় গুরজিন্দর সিংয়ের বাড়ানো বলে দুর্দান্ত হিটে লক্ষ্যেভেদ করেন জিমি (১-০)। ৬ মিনিট পরেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে সাদা-কালোরা। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে সার্কেলের মধ্যে দুজনকে কাটানোর পর জিমির নেয়া রিভার্স হিট শেষ মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে পড়েও ফেরাতে পারেননি প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক রাসেল খান বাপ্পী (২-০)। ১৮ মিনিটে দর্শনীয় ফিল্ড গোলে লিগে নিজের ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক পূরণ করেন জিমি (৩-০)। চলমান লিগে এটা তার ষষ্ঠ হ্যাটট্রিক।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে কিছুক্ষণ খেলার পর জিমিকে তুলে নেন মোহামেডানের কোচ মওদুদুর রহমান শুভ। জিমি না থাকায় দলটির খেলার গতিও কমে যায়। পরে ব্যবধান না বাড়লেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মোহামেডান।
এই জয়ে ১১ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগে শীর্ষে রয়েছে মোহামেডান। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলা আবাহনী লিমিটেড ও মেরিনার ইয়াংসের পয়েন্ট ২৭ করে। পক্ষান্তরে বাংলাদেশ এসসির দশম ম্যাচে এটা সপ্তম হার। মাত্র ৭ পয়েন্ট নিয়ে তারা আছে নবম স্থানে।
এর আগে দিনের প্রথম ম্যাচে এ্যাজাক্স স্পোর্টিং ক্লাব ৫-৩ গোলে হারায় সাধারণ বীমাকে। ম্যাচের প্রথমার্ধে বিজয়ী দল এগিয়ে ছিল ২-১ গোলে। বিজয়ী দলের ইমতিয়াজ রুবেল ২৪ মিনিটে পিসি গোল, লক্ষীন্দর সিং ৩৪ মিনিটে পিসি গোল, গুরুপ্রীত সিং ৩৬ মিনিটে ফিল্ড গোল, হান্সরাজ ৪৮ মিনিটে পিসি গোল এবং ৫৯ মিনিটে লক্ষীন্দর সিং পিসি গোল করেন।
পরাজিত দলের যোগা সিং ১৩ মিনিটে ফিল্ড গোল, ফয়সাল হোসেন ৫৭ মিনিটে ফিল্ড গোল এবং যাহিদ বিন তালিব ৬১ মিনিটে পিসি গোল করেন। পুরো ম্যাচে পিসি পায় সাধারণ বীমা ৬টি, এ্যাজাক্স ৫টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*