Saturday , 8 May 2021
আপডেট
Home » অনলাইন » জীবদ্দশায় অর্থনৈতিক সংগতি প্রয়োজন তাই লকডাউনকে উপেক্ষা

জীবদ্দশায় অর্থনৈতিক সংগতি প্রয়োজন তাই লকডাউনকে উপেক্ষা

এস এম খুররম আজাদঃ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে সোমবার সাধারণ ব্যবসায়ী, খেটে খাওয়া মানুষেদের লকডাউনের প্রতি অনিহা। তাদের (সরিষাবাড়ীবাসী) মন্তব্য হচ্ছে জীবদ্দশায় অর্থনৈতিক সংগতি প্রয়োজন তাই লকডাউনের উপর এমন অবজ্ঞা । চলমান কোভিড ১৯ এর ভয়াবহ রূপের আশঙ্কায় মানুষের শারীরিক সুস্থতায় কোন প্রকার ব্যত্যয় বা কোরোনায় অহরহভাবে আক্রান্ত যেন কেউ না হয় সে জন্য সরকার কর্তৃক নির্দেশনা বেধে দেয়া ৭ দিনের লকডাউন সরিষাবড়ীবাসীর সাধারণ জনগণ অবজ্ঞার সাথে পালন করছে বলে জানা গেছে। এমন ভয়াবহ মহামারি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব মাস্ক পরিধান, পরিস্কার পরিচ্ছন্ন যার একমাত্র সমাধান। অথচ এই সকল নির্দেশনার উপর কোন প্রকার গুরুত্ব দিচ্ছেনা এই উপজেলাটির সর্বস্তরের জনগণ। কোভিড ১৯ থেকে এমন তিনটি নিয়ম সমেত আরো অন্যান্য নির্দেশনা মেনে বেঁচে ফেরার রাস্তা হলেও একজন মানুষের জীবদ্দশায় অনাহারে থাকা কষ্টের চিন্তায় ও স্বীয় পরিবারের মৌলিক চাহিদা নিশ্চিত করণের অভিপ্রায় লকডাউনকে উপেক্ষা করার কারণ বলে জানা গেছে। সরিষাবাড়ীর আরাম নগর বাজারে লকডাউনকে অবমাননা করছে। লকডাউন অবমাননাকারী হতদরিদ্র সরিষাবাড়ী উপজেলার চর সরিষাবাড়ীর ভ্যান চালক হেলাল মিয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কোন রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাবো এটি আমার কাছে অনাকাঙ্খিত বিষয়। যেদিন এমন রোগে আক্রান্ত হবো সেটা সেই দিনের ব্যাপার ভাই। কিন্তু আজকে সারা দিনে আমাকে না হলেও তিনশত টাকা উপার্জন করতে হবে কারণ মৌলিক চাহিদার মধ্যে তিনটি চাহিদা আমার কাছে সবচাইতে বেশী গুরুত্ব বহন করে। তন্মধ্যে বস্ত্র সুদূর চাওয়া পাওয়া হলেও খাদ্য ও চিকিৎসার উপর আমার প্রতিদিন যে খরচগুলো করতে হয় সেগুলির যোগান অবশ্যয় আমাকেই করতে হয় বলে জানান তিনি। এবিষয়ে অনুুুসন্ধিৎসু সাংবাদিক গবেষক মহলের গবেষক এস এম খুররম আজাদ তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জনগণ এবং সরকার একে ওপরের পরিপূরক। সরকার জনগণকে সুরক্ষিত রাখার জন্য এমন কোভিড ১৯ মহাদুর্যোগ থেকে রক্ষা করতেই সারা দেশের ন্যায় লকডাউনের নির্দেশনা দিয়েছেন। যদিও অথর্ব সাধারণ মানুষ কর্তৃক নানা রকম মতপার্থক্য রয়েছে। তবে আমি যতটুকু মনে করি তা হলো মৃত্যুকে ভুলে গিয়ে অন্য কিছুর প্রতি চাওয়া পাওয়া তা সমীচীন নয়। কভিড ১৯ এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত মানব দেহ এখন জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণ সৃষ্টি করে। তাই সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য নিয়ম মেনে এবং লকডাউনের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে সরকারকে সহযোগিতা করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*